মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে

ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন ঔষধ নিয়ন্ত্রণের একমাত্র সরকারি প্রতিষ্ঠান। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর জাতীয় ঔষধ নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষ  হিসেবে অভিহিত। এ প্রতিষ্ঠানের মূল লক্ষ্য মানসম্পন্ন, নিরাপদ ও কার্যকর ঔষধ উৎপাদন, আমদানী, বিক্রয়, বিতরণ এবং ঔষধের যৌক্তিক ব্যবহার নিশ্চিত করা। ঔষধ নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে ড্রাগ এ্যাক্ট-১৯৪০, ড্রাগ রুলস-১৯৪৫, বেঙ্গল ড্রাগ রুলস-১৯৪৬, ড্রাগ (কন্ট্রোল) অর্ডিন্যান্স-১৯৮২ ও তার এ্যামেন্ডমেন্ট এবং জাতীয় ঔষধ নীতি-২০১৬ এবং সরকার কর্তৃক বিভিন্ন সময়ে প্রদত্ত নির্দেশনা অনুসরণ করা হয়।

বর্তমানে দেশে ২৭২ টি অ্যালোপ্যাথিক ঔষধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান প্রায় ৩০৭৬৯২.৪ মিলিয়ন টাকার ঔষধ ও ঔষধের কাঁচামাল তৈরী করে। এছাড়া দেশের ২৭৩ টি ইউনানী ও ২০৫ টি আয়ূর্বেদিক এবং ৭৯ টি হোমিওপ্যাথিক ও ৩৫ টি হার্বাল ঔষধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান প্রায় ৯০০ কোটি টাকার ঔষধ উৎপাদন করে থাকে। দেশে ১৩৩৬২৯ টি লাইসেন্সধারী ঔষধ বিক্রয়ের ফার্মেসী রয়েছে। বিধি মোতাবেক এসব ঔষধ প্রস্তুতকারী ও বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় কর্মকান্ড নিয়ন্ত্রণ ও মনিটরিং এর দায়িত্ব ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর পালন করে থাকে।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter